মোঃ জাহেদ হাসান রনি (২১) নামে এক গুজব রটনাকারীকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব -৭।

 ২০১৯-০৭-২৭  ১১:২৭ পিএম
 প্রেস বিজ্ঞপ্তি

মোঃ জাহেদ হাসান রনি (২১) নামে এক গুজব রটনাকারীকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব -৭।

সম্প্রতি কিছু অসাধু ব্যক্তি বর্তমান বাংলাদেশের উন্নয়নে বাধা সৃষ্টিসহ বর্তমান সরকারের বদনাম রটানোর উদ্দেশ্যে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ফেসবুকসহ বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় নানা রকম গুজব ছড়াচ্ছে। এরই প্রেক্ষিতে র‌্যাব-৭ এ ধরনের গুজবকারীকে গ্রেফতারের লক্ষে ঝড়পরধষ গবফরধ গুলোতে ব্যাপক মনিটরিং শুরু করেছে। এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম জানতে পারে যে, একজন গুজবকারী ‘‘জাহেদ হাসান রনি’’ নামক ফেসবুক আইডি থেকে বিভিন্ন শ্রেনী সম্প্রদায়ের মধ্যে শত্রুতা ও বিদ্বেষ সৃষ্টি, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট এবং বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে আইন শৃঙ্খলার অবনতি ঘটানোর লক্ষ্যে সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠির মাঝে উস্কানিমূলক তথ্য প্রচারের নিমিত্তে মোবাইল ফোন এবং নানা রকম ইলেকট্রিক ডিভাইস ব্যবহার করে বিভিন্ন ছবি ও তথ্য ফেইসবুক তথা স্যোশাল মিডিয়ার মাধ্যমে প্রচারসহ অন্যের পোষ্ট শেয়ার করে নানা রকম গুজব রটানোর কাজে লিপ্ত আছে। ব্যাপক গোয়েন্দা তৎপরতার এক পর্যায়ে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম জানতে পারে যে, উক্ত গুজবকারী ফেনী জেলার সদর থানাধীন পৌরসভাস্থ গোপাল পট্টি এলাকায় অবস্থান করছে। উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে অদ্য ২৭ জুলাই ২০১৯ ইং তারিখ ১৯২০ ঘটিকার সময় র‌্যাব-৭ এর একটি চৌকষ আভিযানিক দল ফেনী জেলার সদর থানাধীন পৌরসভাস্থ গোপাল পট্টি হাবিব চক, ফয়েজ জুয়েলার্স নামক দোকানে অভিযান পরিচালনা করে আসামী মোঃ জাহেদ হাসান রনি (২১), পিতা- ফয়েজ আহম্মেদ, গ্রাম- দৌলতপুর, ইউপি ধলিয়া, থানা- সদর, জেলা- ফেনী’কে গুজব রটানোর কাজে ব্যবহৃত ০২ টি আইফোন ও ০২ টি সীম কার্ডসহ হাতেনাতে গ্রেফতার করে।

পরবর্তীতে উপস্থিতি সাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত আসামীর উদ্ধারকৃত মোবাইল বিশ্লেষণ করে তার (জাহেদ হোসেন রনি) ব্যবহৃত ফেইসবুক একাউন্ট পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে উক্ত ফেইসবুক আইডির টাইমলাইনে বাংলাদেশের ধর্মীয় সম্প্রীতি বিনষ্ট ও বিভিন্ন গোষ্টির মধ্যে দ্বন্দ সৃষ্টির লক্ষে মসজিদ পোড়ানোর ছবি ও পাশ্ববর্তী রাষ্ট্রে জনৈক মুসলমানকে পিটিয়ে হত্যা করা এবং একজন মুসলমান মহিলাকে মন্দিরে রেখে নির্যাতন করে হত্যা করার বিভিন্ন ধরনের শব্দ ব্যবহার করে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনাশ ও আইন শৃঙ্খলা অবনতি ঘটানো সংক্রান্ত বিভিন্ন পোষ্ট পাওয়া যায়। পোষ্ট গুলোর মধ্যে রয়েছে ১। ‘‘কোন দেশে বসবাস করি দুঃখে বুকটা ফেটে যায়, কত বড় দুঃসাহস হলে মসজিদে আগুন দিয়ে পুড়তে পারে, গত ব্রাক্ষ্মনবাড়িয়া শহরের পূর্ব মেড্ডা শান্তিবাগ জামে মসজিদে আগুন দিয়ে সম্পূর্ণ মসজিদ পুড়ে ফেলেছে’’, ২। ‘‘তাবরেজ আনসারির বয়স ২৪ বছর, মাত্র তিন বছর বয়সে তার মা মারা যায়, ১০ বছর বয়সে বাবাকে হারায় তাবরেজ আনসারি, মাত্র ১০ বছর বয়সেই ওয়েল্ডিং এর কাজ করে সংসারের হাল ধরে সে, মাত্র দেড়মাস আগে বিয়ে করে ঘরে নতুন বউ এনেছিল তাবরেজ আনসারি, নতুন বউকে নিয়ে কর্মস্থল পুনেতে যাওয়ার জন্য গত ২৪ তারিখের টিকেটও কেটে রেখেছিল, কিন্তু সে যাওয়া আর হলো না, তাবরেজ আনসারির বাড়ী বিজিপি শাসিত ঝাড়খন্ডে যেখানে গত চার বছরে প্রায় ১২ জন মুসলিমকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে, তাবরেজ আনসারি তার নাম জানার পর মুসলিম হওয়ার কারনে টানা ১৮ ঘন্টা পিটানো হয়েছে তাকে, জয় শ্রীরাম, জয় হনুমান বলতে বাধ্য করা হয়েছে, ১৮ ঘন্টা পিটানোর পর অজ্ঞান হয়ে গেলে পুলিশ এসে তাকে গেফতার করে, মারাতœকভাবে আহত হওয়ার পরও তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়নি, অসহ্য যন্ত্রনা ভোগ করে চারদিন পর তার মৃত্যু হয়, বিজেপি, পুলিশ, রাষ্ট্র মিলে তাকে হত্যা করেছে’’, ৩। ‘‘মনে আছে ৮ বছর বয়সি আসিফার কথা? আসিফা টানা আট দিন ধরে

ধর্ষন করে বিজেপি/আরএসএস এর কর্মীরা, নির্যাতনে মারা যাবার পর আসিফার লাশ ফেলে যায় নরপশুরা বিবিসি প্রতিবেদন অনুসারে নির্যাতনে আসিফার নখগুলি কালচে বর্ণের হয়ে গিয়েছিল তার শরীরে ও আঙ্গুলে অসংখ্য নীল ও লাল দাগ ছিল, এই শিশুটির সারা শরীরে ছিল হিং¯্র কামড়ের দাগ, মানুষ নামের পশুগুলো তার সারা শরীর পাথর দিয়ে থেতলে দেয়, তার গলার হাড় ও পাজরের হাড়সহ সারা শরীরের হাড় ও অস্তিমজ্জা ছিল ভাঙ্গা, আসিফাকে হত্যার আগেও এক পুলিশ অফিসার সবাইকে অনুরোধ করেছিল তাকে শেষবারের মত ধর্ষনের সুযোগ দিতে’’, ৪। ‘‘মুসলিম হত্যার ইস্যুতে বিজেপি, উগ্র হিন্দু, পুলিশ ও রাষ্ট্রযন্ত্র ছিল সব সময় একতা। তাবরেজ, আসিফা উভয় ক্ষেত্রে পুলিশ অপরাধীদের বাঁচাতে আপ্রান চেষ্টা করেছে। এমনকি অপরাধীদের পক্ষে মিছিলও হয়েছে, ইন্ডিয়ান মুসলিমদের উপর রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস চলছে’’। উল্লেখ্য যে, গ্রেফতারকৃত আসামীকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে ফেইসবুকসহ বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে এধরণের গুজব ছড়ানোর কথা স্বীকার করে। তার দেয়া তথ্য যাচাই-বাছাইয়ের ভিত্তিতে এই চক্রের সাথে জড়িত অন্যান্য সদস্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।  গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে ফেনী জেলার সদর থানায় হস্তান্তরের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।


-

কুলাউড়ায় ৯৮ লক্ষ টাকার সড়ক নির্মান কাজ শুরু

চট্টগ্রাম জেলার ফটিকছড়ি থানাধীন ৫,৬০,০০০ পিস বিভিন্ন ধরনের সিগারেটসহ ০১ জন চোরাকারবারী’কে আটক করেছে র‌্যাব-৭।

ঘর পেয়েছি আমরা, বেহেস্ত পাবেন শেখ হাসিনা

ফটিকছড়িতে পরিবার কল্যাণ সহকারীদের প্রতিবাদ সভা

রৌমারীতে ব্রহ্মপুত্র নদীতে অবাধে ইলিশ শিকার

মতলব উত্তরে প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্য পরিষদের আহবায়ক কমিটি গঠন

নকল বীজে প্রতারিত কৃষক, ভ্রাম্যমাণ আদালতে অভিযান

সামজিক ও মানবিক সংগঠন প্রিয় বাংলাদেশ কর্তৃক পথশিশুদের মাঝে খাবার বিতরন

অতর্কিত হামলায় রক্তাক্ত দুই

চট্টগ্রামে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় পুলিশ সার্জেন্ট নিহত

জাতীয় অর্থনীতিতে মৎস্য খাত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে ---এড. নুরুল আমিন রুহুল এমপি

এখনো প্রবীণগন অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করেন ধামের গানের আসর

সাড়ে ৩ কোটি টাকা আত্মসাতে খুলনার সহকারী কর কমিশনার গ্রেফতার

চট্টগ্রাম মহানগরীর পাঁচলাইশ থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে প্রতারক চক্রের তিন সদস্য কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৭।

চাঁপাইনবাবগঞ্জে জেলা জাসদের উদ্দ্যোগে বিভিন্ন দাবিতে গণমিছিল ও সমাবেশ

কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস’ এর শুভ উদ্বোধন

এখন সবচেয়ে বড় জিহাদ প্রয়োজন নিজের কু-প্রবৃত্তির বিরুদ্ধে: তুরিন আফরোজ

সীতাকুণ্ডের সলিমপুরে ঢাকা - চট্টগ্রাম সড়কে দূর্ঘটনায় ৬ জন আহত হয়েছে

খুলনার বটিয়াঘাটায় অজ্ঞাত যুবকের মরদেহ উদ্ধার

ছেংগারচর পৌর আওয়ামী যুবলীগের ৩নং ওয়ার্ড ত্রি -বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত