সানোয়ারুল ইসলাম রনি। মীরসরাই (চট্টগ্রাম)
কম সময়ের মধ্যে মসলা ফসল উৎপাদনে ধনিয়া উলে¬খযোগ্য। ধনিয়া রবি ফসল হলেও এখন প্রায় সারা বছরই এর চাষ করা যায়। ধনিয়ার কচিপাতা সালাদ ও তরকারিতে সুগন্ধি মসলা হিসেবে ব্যবহƒত হয়। এছাড়া ধনিয়ার পুষ্ট বীজ বেঁটে বা গুঁড়া করে তরকারিতে মসলা হিসেবে ব্যবহার করা হয়। মীরসরাই উপজেলার পাহাড়ী পাদদেশ এলাকার উঁচু জমি সারাবছরই ধনিয়া চাষের সবচেয়ে উপযোগি। কৃষকদের শুধুমাত্র উদ্বুদ্ধকরনের উদ্যোগ নিলেই পাহাড়ের পাদদেশের সকল অনাবাদি জমি অর্থকরি এই ধনিয়া চাষের আওতায় আনা সম্ভব।
মীরসরাই উপজেলা কৃষি সুপারভাইজার নুুরুল আলম থেকে প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায় বর্তমানে শীত মওসুমে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে ১৫০ হেক্টর জমিতে ধনিয়া চাষ হয়। কিন্তু বর্তমান সময়ে সারা বছরই বিভিন্ন জাতের ধনিয়া চাষের জন্য মীরসরাই উপজেলার পাহাড়ের পাদদেশ সহ বিভিন্ন উঁচু জমি প্রযোজ্য। দ্ররুত পানি সরে যাবার ব্যবস্থা করে শেড এর ভেতর চারা করেই ধনিয়া চাষের উদ্যোগ নেয়া যেতে পারে। এতে উদ্বুদ্ধকরণের উদ্যোগ নিলে পাহাড়ের পাদদেশ এলাকায় আরো ৫০ হেক্টর জমি সমলা ফসল ধনিয়া আবাদের আওতায় আনা সম্ভব। মীরসরাই উপজেলার ওয়াহেদপুর, খৈয়াছরা, দুর্গাপুর, আমবাড়িয়া, তালবাড়িয়া, দুর্গাপুর, সোনাপাহাড়, হিঙ্গুলী ও করেরহাট এলাকার বিভিন্ন এলাকা এই ফলনের আওতায় আনা সম্ভব।
উপজেলার আমবাড়িয়া গ্রামের কৃষক জাহাঙ্গির আলম বলেন আমি এবার ধনিয়া চাষ করে পাতা হিসেবেই বাজারে বিক্রি করে দিয়েছি। এখন আবার সেই জমিতে তিতা করলা ও শষিন্দা করছি। কম সময়ে অধিক লাভ হওয়ায় আমি ধনিয়া চাষে উদ্বুদ্ধ হয়েছি। একই জমিতে বার বার ও ধনিয়া চাষ করা যায় এখন তাই আগামিদিনে ও আমি কিছু জমিতে শুধু ধনিয়াই চাষ করবো। তিনি আরো মনে করেন সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা পেলে ধনিয়া চাষে সাধারণ কৃষকরা আরও আগ্রহী হবে।

বীজ বপনের ৩০ থেকে ৩৫ দিন পর পাতা সংগ্রহ শুরু করা যায়। পরবর্তী সময়ে মাসখানেক ধরে এ সংগ্রহ চালিয়ে যাওয়া যায়। এতে ১ শতক জমিতে ১৫ থেকে ২০ কেজি পাতা পাওয়া যায়। আবার বীজ সংগ্রহের জন্য গাছ রেখে দিলে এবং বীজ যখন সম্পূর্ণভাবে পাকে কিন্তু গাছ প্রায় সবুজ থাকে তখন বীজ সংগ্রহ করলে ৮ থেকে ১০ কেজি বীজ পাওয়া যায়। প্রতি শতকে ধনিয়া চাষে খরচ প্রায় ২০০ টাকা। আগাম চাষ করলে প্রতি কেজি পাতার দাম ৮০ টাকা থেকে ১০০ টাকা হিসাবে প্রতি শতকে প্রায় ২০০০ টাকা পাওয়া যায়। বিঘাপ্রতি চাষে অবশ্য এ খরচ কমে আসে যা প্রায় ৩ হাজার ৫০০ থেকে ৪ হাজার টাকার মতো এবং ৫৫০ থেকে ৬০০ কেজি পাতায় গড়ে প্রায় ১৫ হাজার টাকা আয় করা যায়। অর্থাৎ ধনিয়া চাষ করে প্রতি বিঘা থেকে প্রায় ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা লাভ করা সম্ভব।
মীরসরাই উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা বুলবুল আহমেদ জানান, ধনিয়া চাষাবাদে খরচ ও রোগ বালাই খুব কম হওয়ায় ধনিয়া চাষের লক্ষ মাত্রা বাড়ানোর উদ্যোগ নিবো আমরা।