চট্টগ্রাম প্রতিনিধি : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেছেন, চট্টগ্রাম ১৪ দল মৌলবাদ, জঙ্গিবাদ ও অসাম্প্রদায়িক দেশ গঠনে উজ্জীবনী শক্তি হিসেবে মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের শক্তিকে চট্টগ্রামে স্বক্রিয় রয়েছে। তাই ১৪ দল আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে আবারও মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের রাজনৈতিক শক্তিকে ক্ষমতাসীন করার জন্য কাজ করে যাবে। তিনি ২২ জানুয়ারী সোমবার সন্ধ্যায় মরহুম আলহাজ্ব এ.বি.এম. মহিউদ্দিন চৌধুরী’র চশমা হিলস্থ বাসভবনে চট্টগ্রাম ১৪ দলের সমন্বয় সভায় এ কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, আমার বাবা মরহুম এ.বি.এম মহিউদ্দিন চৌধুরী চট্টগ্রাম ১৪ দলের প্রাণপুরুষ ছিলেন। তিনি চট্টগ্রামে ১৪ দলকে সংগঠিত করেছেন। চট্টগ্রাম ১৪ দল শুধু একটি রাজনৈতিক শক্তিই নয়, সামাজিক আন্দোলন। এই আন্দোলনকে অব্যাহত রেখে জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সমাজ প্রগতিকে এগিয়ে নিতে হবে। ১৪ দলের বিভাগীয় সমন্বয়ক আলহাজ্ব এ.বি.এম. মহিউদ্দিন চৌধুরী’র শোকসভা পালনোপলক্ষে এক প্রস্তুতি সভায় সভাপতিত্ব করেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এড. সুনীল কুমার সরকার।

সভায় সিদ্ধান্ত হয় আগামী ৩ ফেব্রুয়ারি বিকেল ৩টায় চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে চট্টগ্রাম ১৪ দলের উদ্যোগে এ.বি.এম. মহিউদ্দিন চৌধুরী স্মরণে শোকসভা অনুষ্ঠিত হবে। এ আয়োজনকে সর্বাত্মকভাবে সফল করার জন্য ১৪ দলের শরিক সংগঠনকে ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণের জন্য আহ্বান জানানো হয়।

সভায় বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব খোরশেদ আলম সুজন, জাসদ কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক ও সম্পাদক মহানগর সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন বাবুল, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব বদিউল আলম, মহানগর জাতীয় পার্টি জেপি’র আহ্বায়ক আজাদ দোভাষ, ওয়ার্কার্স পার্টির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক শরিফ চৌহান, সাম্যবাদী দলের জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক অমূল্য বড়ুয়া, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিক আদনান, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুক, ন্যাপ মহানগর সদস্য সচিব মিটুল দাশগুপ্ত, তরিকত ফেডারেশনের কাজী আহসানুল মোরশেদ কাদেরী, জাসদ বাংলাদেশের আবদুল লতিফ, ন্যাপ মহানগর নেতা জে.এম কবির প্রমুখ।